অ্যালো ভেরা কেন চুলের জন্য উপকারী – Aloe Vera For Hair Care in Bengali

by

রূপচর্চার ক্ষেত্রে আজকাল অ্যালো ভেরা বা ঘৃতকুমারী আমাদের কাছে খুবই জনপ্রিয়। শুধু ত্বকের জন্যই এটি উপযোগী তা নয়, চুলের জন্য এটি খুবই স্বাস্থ্যকর। অ্যালো ভেরাতে থাকে প্রচুর পরিমাণে অ্যামিইনো অ্যাসিড ও প্রোটিওলাইটিক এনজাইম (1) , যা স্ক্যাল্পকে স্বাস্থ্যকর করে তোলার পাশাপাশি চুলের বৃদ্ধিতেও সাহায্য করে। আমাদের এই প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের জানাবো চুলের যত্নে অ্যালো ভেরা কেন উপকারী ও কিভাবে এটি ব্যবহার করতে হয়।

চুলের জন্য অ্যালো ভেরার উপকারিতাগুলি কি কি ?

  • অ্যালো ভেরাতে প্রোটিওলাইটিক এনজাইম (1) থাকার পাশাপাশি অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটারি উপাদান আছে। তাই এটি স্ক্যাল্পেকে নানা ধরণের চুলকানি, কোষকে নষ্ট হওয়ার হাত থেকে বাঁচায়।
  • এতে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি-সেপটিক উপাদান (2) থাকার জন্য স্ক্যাল্পে ইনফেকশন হতে দেয় না।
  • অ্যালো ভেরাতে ভিটামিন, লিপিড, মিনারেল অয়েল এবং অ্যামিইনো অ্যাসিড থাকে (1) , তাই এটি চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।
  • অ্যান্টি-ফাঙ্গাল উপাদান (3) থাকার জন্য এটি স্ক্যাল্পে খুশকির সমস্যা কমায়।
  • যে অংশে অ্যালো ভেরা মাখানো হবে, সেই অংশে রক্ত চলাচলের উন্নতি করতে পারে (3) । তাই এটি চুলের বৃদ্ধিতে সক্ষম।
  • অ্যালো ভেরা চুল ও স্ক্যাল্পকে মোলায়েম রাখতে পারে (1) ।
  • চুল পড়া রোধ করে ও চুলকে পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে (4)।

চুলের জন্য অ্যালো ভেরার উপকারিতাগুলি তো জানলেন, এবার শুরু জানা যাক এটি কিভাবে ব্যবহার করতে হবে।

মনে রাখবেন, উপরে উল্লেখিত উপকারিতাগুলি পেতে ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল ব্যবহার করাই ভালো। একটি অ্যালো ভেরার পাতাকে কেটে তার মধ্যে থেকে জেলটি একটি চামচ দিয়ে বার করে মিক্সার গ্রাইন্ডারে ঘুরিয়ে নিলে পেয়ে যাবেন ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল।

চুলের যত্নে অ্যালো ভেরা কিভাবে ব্যবহার করতে হবে ?

১. অ্যালো ভেরা ও ক্যাস্টর অয়েল

কি কি লাগবে ?

  • ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল
  • দু চামচ ক্যাস্টর অয়েল
  • দু চামচ মেথি পাউডার
  • শাওয়ার ক্যাপ
  • একটি টাওয়েল

কি করতে হবে ?

প্রত্যেকটি উপাদানগুলি একটি বাটিতে নিয়ে খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। তারপর সেটি চুলে মেখে নিন, বিশেষ করে স্ক্যাল্পে ও চুলের আগাতে ম্যাসাজ করবেন। এরপর একটি শাওয়ার ক্যাপ

পরে একটি টাওয়েল বা তোয়ালে জড়িয়ে সারারাত রেখে দিন অর্থাৎ ঘুমিয়ে পড়ুন। সকালে উঠে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

ক্যাস্টর অয়েল ক্ষতি হওয়া চুলকে সারাতে, চুলে স্প্লিট এন্ড হলে, চুল পড়া, খুশকির হাত থেকে বাঁচায় এবং তার সাথে সাথে চুলকে মোলায়েম করে তোলে (5) ।

২. অ্যালো ভেরা ও পেঁয়াজের রস

কি কি লাগবে ?

  • ১ টেবিল চামচ অ্যালো ভেরা জেল
  • পরিমাণ মতো পেঁয়াজের রস

কি করতে হবে ?

আপনার চুলের দৈর্ঘ্য অনুযায়ী হিসেবে মতো পেয়াঁজ নিয়ে মিক্সার গ্রাইন্ডারে ঘুরিয়ে পেস্ট নিন। তারপর সেটিকে ছেঁকে রসটি বার করে নিন। এবার অ্যালো ভেরা জেলের সঙ্গে এটি ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে চুলের স্ক্যাল্প থেকে শুরু করে পুরো চুলে ভালো করে লাগিয়ে এক ঘন্টা রেখে দিন, তারপর শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন। সপ্তাহে একবার ব্যবহার করবেন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

পেঁয়াজের রস হল চুলের বৃদ্ধির জন্য খুবই উপযোগী। চুলকে পড়তেও বাধার সৃষ্টি করে এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে (6) ।

মনে রাখবেন, বেশি পরিমাণে পেয়াঁজের রস ব্যবহার করলে কিন্তু সেটি স্ক্যাল্পের ক্ষতি করতে পারে, তাই বুঝে পরিমাণ মতো নেবেন।

৩. অ্যালো ভেরা ও মধু

কি কি লাগবে ?

  • ৫টেবিল চামচ অ্যালো ভেরা জেল
  • ৩টেবিল চামচ নারকেল তেল
  • ২ টেবিল চামচ মধু
  • শাওয়ার ক্যাপ

কি করতে হবে ?

উপদানগুলিকে ভালো ভাবে মিশিয়ে একটি মসৃন প্যাক বানিয়ে নিন। তারপর সেটিকে স্ক্যাল্প থেকে শুরু করে চুলের আগা পর্যন্ত ভালো করে লাগিয়ে নেবেন ও কমপক্ষে ২৫মিনিট রেখে ঠান্ডা জলে শ্যাম্পু করে নেবেন। কন্ডিশনার লাগাতে ভুলবেন না যেন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

অ্যালো ভেরা ও মধু উভয়েই চুল ও স্ক্যাল্পকে কোমল রাখে (7)। খুশকি দূর করতে মধু খুবই উপযোগী (8) ।

৪. অ্যালো ভেরা ও লেবু

কি কি লাগবে ?

  • ২টেবিল চামচ ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল
  • ১টেবিল চামচ লেবুর রস

কি করতে হবে ?

অ্যালো ভেরা জেল ও লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে প্রথমে সেটি স্ক্যাল্পে ভালোভাবে ম্যাসাজ করুন ও তারপর বাকি থাকা মাস্কটি চুলে লাগিয়ে নিন। কমপক্ষে ২৫মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন এবং শেষে কন্ডিশনার লাগাবেন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

লেবুতে আছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন সি (9), যা কোলাজেন সংশ্লেষ বৃদ্ধি করে। ফলে স্ক্যাল্প স্বাস্থ্যকর হয়ে ওঠে।

৫. অ্যালো ভেরা ও অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার

কি কি লাগবে ?

  • ১কাপ ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল
  • ২টেবিল চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার
  • ১টেবিল চামচ মধু

কি করতে হবে ?

উপদানগুলিকে ভালো ভাবে মিশিয়ে একটি মসৃন প্যাক বানিয়ে নিন। তারপর সেটিকে স্ক্যাল্প থেকে শুরু করে চুলের আগা পর্যন্ত ভালো করে লাগিয়ে নেবেন ও কমপক্ষে ১৫মিনিট রেখে কোনো মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন। সপ্তাহে দুবার ব্যবহার করতে পারেন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

অ্যাপেল সাইডার ভিনিগারে অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল উপাদান থাকার জন্য (10) এটি খুশকির সমস্যার থেকে মুক্তি দেয়। স্ক্যাল্পকে স্বাস্থ্যকর করে তোলে।

৬. অ্যালো ভেরা ও হেনা

কি কি লাগবে ?

  • ২কাপ হেনা পাতা
  • ২টেবিল চামচ দই
  • ১টেবিল চামচ ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল
  • ১টেবিল চামচ অলিভ অয়েল

কি করতে হবে ?

হেনা পাতাকে দুইঘন্টা জলে ভিজেয়ে রেখে মিক্সার গ্রাইন্ডারে ঘুরিয়ে নিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে। তারপর উপরে উল্লেখিত সব উপকরণগুলি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে স্ক্যাল্প সহ পুরো চুলে ভালো করে লাগিয়ে নিন। কমপক্ষে ৪৫মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে নিন। কন্ডিশনার লাগাতে ভুলবেন না যেন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

চুলকে নানা ধরণের ক্ষতি যেমন চুল পড়া, স্প্লিট এন্ডসের থেকে বাঁচায় (5) ও চুলের দৈর্ঘ্য বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

৭. অ্যালো ভেরা ও বেকিং সোডা

কি কি লাগবে ?

  • ৪টেবিল চামচ অ্যালো ভেরা জেল
  • ২টেবিল চামচ মধু
  • ২টেবিল চামচ বেকিং সোডা
  • ১টেবিল চামচ নারকেলের দুধ

কি করতে হবে ?

অ্যালো ভেরা জেল, মধু ও নারকেলের দুধ মিশিয়ে একটি পেস্ট বানিয়ে নিন। চুল ভালো করে জলে ভিজিয়ে শ্যাম্পুর পরিবর্তে এটি মেখে নিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন, তারপর চুল আবার ধুয়ে ফেলুন। ২টেবিল চামচ বেকিং সোডার মধ্যে অল্প জল দিয়ে সেটি হালকা হাতে স্ক্যাল্পে স্ক্র্যাব করুন। তারপর আবার ঠান্ডা জলে চুল ধুয়ে নিন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

বলা হয়, PH ব্যালান্স ঠিক রাখার জন্য এটি ব্যবহার করা হয়। আপনি অনেক ইউটিউব ব্লগারকে এই ধরণের পদ্ধতি অবলম্বন করতে দেখবেন। কিন্তু বৈজ্ঞানিক ভাবে এর কোনো প্রমাণ নেই।

৮. অ্যালো ভেরা ও গোলমরিচ

কি কি লাগবে ?

  • হাফ কাপ ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল
  • ১চামচ গোলমরিচ গুঁড়ো

কি করতে হবে ?

উপদানগুলিকে ভালো ভাবে মিশিয়ে একটি মসৃন প্যাক বানিয়ে নিন। তারপর সেটিকে স্ক্যাল্প থেকে শুরু করে পুরো চুলে ভালো করে লাগিয়ে নেবেন ও কমপক্ষে ১০মিনিট রেখে কোনো মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

গোলমরিচে থাকে ক্যাপসাইসিন নামক একটি উপাদান, যা নতুন চুল গজাতে (11) ও চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

৯. অ্যালো ভেরা ও গ্রীন টি

কি কি লাগবে ?

  • হাফ কাপ গ্রীন টি
  • হাফ কাপ ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল

কি করতে হবে ?

উপদানগুলিকে মিক্সার গ্রাইন্ডারে ভালো করে পেস্ট করে নিয়ে মাথায় মাখুন, স্ক্যাল্প ও চুলে ম্যাসাজ করে নিন। তারপর কমপক্ষে ১০মিনিট রেখে জল দিয়ে ধুয়ে কন্ডিশনার লাগিয়ে নেবেন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

গ্রীন টি স্ক্যাল্পে অতিরিক্ত তেল তৈরী হওয়া রোধ করে (12)। এছাড়া গ্রীন টিতে EGCG(epigallocatechin-3-gallate) থাকার জন্য চুলকে বৃদ্ধিতে সাহায্য করে (13) ।

১০. অ্যালো ভেরা ও মেথি

কি কি লাগবে ?

  • ২টেবিল চামচ মেথি
  • ২টেবিল চামচ ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল

কি করতে হবে ?

সারা রাত মেথি জলে ভিজিয়ে রেখে সকালে মিক্সার গ্রাইন্ডারে পেস্ট করে নিন। তাতে ২টেবিল চামচ ফ্রেশ অ্যালো ভেরা জেল দিয়ে মিশিয়ে মসৃন একটি পেস্ট বানিয়ে নিন। সেটি স্ক্যাল্প ও পুরো চুলে মেখে কমপক্ষে আধঘন্টা রেখে দিন। তারপর কোনো মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন। সপ্তাহে একবার করে এই প্যাকটি ব্যবহার করুন।

কিভাবে সাহায্য করে ?

চুলের বৃদ্ধিতে মেথি খুবই উপকারী (14)। এটি চুলকে খুশকি মুক্ত করতে ও স্প্লিট এন্ড থেকে বাঁচাতে সাহায্য করে।

তবে সবসময় মনে রাখবেন, একদিন চুলের যত্ন নিলেই চুল উজ্জ্বল ও স্বাস্থ্যময় হয়ে উঠবে। নিয়মিত আপনাকে চুলের যত্ন নিতে হবে। নিজের যত্ন করুন, সুস্থ থাকুন।

14 sources

Stylecraze has strict sourcing guidelines and relies on peer-reviewed studies, academic research institutions, and medical associations. We avoid using tertiary references. You can learn more about how we ensure our content is accurate and current by reading our editorial policy.
Was this article helpful?
scorecardresearch